অবিচল নিষ্ঠা (ইস্তেকামাত)

Print
Category: নবীর বাণী
Published Date Written by সম্পাদক

8- بابفيالاستقامة

অনুচ্ছেদঃ আট
অবিচল নিষ্ঠা (ইস্তেকামাত)


قَالَاللهتَعَالَى : فَاسْتَقِمْكَمَاأُمِرْتَ  - هود : 112

মহান আল্লাহ বলেনঃ তোমাকে যেমন নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তেমনি (তুমি দ্বীনের পথে) অবিচল থাকো। (সূরা হূদঃ ১১২)

وَقالَتَعَالَى :

إِنَّ الَّذِينَ قَالُوا رَ‌بُّنَا اللَّـهُ ثُمَّ اسْتَقَامُوا تَتَنَزَّلُ عَلَيْهِمُ الْمَلَائِكَةُ أَلَّا تَخَافُوا وَلَا تَحْزَنُوا وَأَبْشِرُ‌وا بِالْجَنَّةِ الَّتِي كُنتُمْ تُوعَدُونَ ﴿٣٠ نَحْنُ أَوْلِيَاؤُكُمْ فِي الْحَيَاةِ الدُّنْيَا وَفِي الْآخِرَ‌ةِ ۖ وَلَكُمْ فِيهَا مَا تَشْتَهِي أَنفُسُكُمْ وَلَكُمْ فِيهَا مَا تَدَّعُونَ ﴿٣١ نُزُلًا مِّنْ غَفُورٍ‌ رَّ‌حِيمٍ ﴿٣٢

[ فصلت : 30- 32]

মহান আল্লাহ আরও বলেনঃ যারা (মনে প্রাণে) ঘোষণা করে যে, আল্লাহ্ আমাদের প্রভু(রব) এবং তারা একথার উপরই অবিচল থাকে, নিঃসন্দেহে তাদের নিকট ফেরেশতা অবতরণ করে বলতে থাকে, (তোমরা) ভয় পেয়ো না, দুঃশ্চিন্তাও করো না; বরং সেই জান্নাতের সুসংবাদ গ্রহণ কর যার প্রতিশ্রুতি তোমাদের দেয়া হয়েছে। আমরা এই দুনিয়ার জীবনে তোমাদের বন্ধু আর পরকালেও। সেখানে (জান্নাতে) তোমাদের মন যা কিছুই চাইবে, আকাংখা করবে তা সবই পাবে। এসব সেই আল্লাহর পক্ষ থেকে মেহমানদারী হিসেবে পাবে, যিনি অতীব ক্ষমাশীল ও দয়াবান। (সূরা হা-মীম-আস-সিজদাহঃ ৩০-৩২)

 

وَقالَتَعَالَى : إِنَّالَّذِينَقَالُوارَبُّنَااللهُثُمَّاسْتَقَامُوافَلاخَوْفٌعَلَيْهِمْوَلاهُمْيَحْزَنُونَأُولَئِكَأَصْحَابُالْجَنَّةِخَالِدِينَفِيهَاجَزَاءًبِمَاكَانُوايَعْمَلُونَ 

[ الأحقاف : 13-14 ]


মহান আল্লাহ্ আরও বলেনঃ যারা (মনে-প্রাণে) অঙ্গীকার করে যে, আল্লাহ্ আমাদের প্রভু (রব) এবং (সেই সঙ্গে) তারা এর উপর অবিচল থাকে, তাদের কোন ভয়-ভীতি নেই, তারা কোন দুঃশ্চিন্তাও করবে না। তারা দুনিয়ায় যে কাজ করেছিল, তার বিনিময়ে জান্নাতী হয়ে চিরকাল সেখানে বাস করবে। (সূরা আহকাফঃ ১৩-১৪)

85-وعنأبيعمرو،وقيل : أبيعَمرةسفيانبنعبدالله،قَالَ : قُلْتُ : يَارَسُولالله،قُلْليفيالإسْلامِقَولاًلاَأسْأَلُعَنْهُأَحَداًغَيْرَكَ . قَالَ : (( قُلْ : آمَنْتُبِاللهِ،ثُمَّاستَقِم-

[ أخرجه : مسلم 1/47 ( 38 ) . أيالإيمانبوجوداللهعزوجلوبربوبيتهوبأسمائهوصفاتهوأحكامهوأخباره،واستقمعلىشريعةالله.  شرحرياضالصالحين 1/304 ]

৮৫. হযরত সুফিয়ান ইবনে আব্দুল্লাহ্ (রা) বর্ণনা করেনঃ একদিন আমি বললাম, হে আল্লাহর রাসূল! আপনি ইসলামের ব্যাপারে আমায় এমন কথা বলে দিন, যেন সে বিষয়ে আপনি ছাড়া আর কাউকে কিছু জিজ্ঞেস করতে না হয়। তিনি (রাসূল) বললেনঃ বলো, আমি আল্লাহর প্রতি ঈমান এনেছি, তারপর এর ওপর অবিচল হয়ে যাও।

[মুসলিম: ১/৪৭ (৩৮)]

 

86-وعنأبيهريرةَ،قَالَ : قَالَرَسُولالله : (( قَارِبُواوَسَدِّدُوا،وَاعْلَمُواأَنَّهُلَنْيَنْجُوَأَحَدٌمِنْكُمْبعَمَلِهِ )) قالُوا : وَلاأَنْتَيَارَسُولالله؟قَالَ :    (( وَلاَأناإلاَّأنْيَتَغَمَّدَنياللهبرَحمَةٍمِنهُوَفَضْلٍ )) [ رواهمسلم]
وَ(( المُقَاربَةُ )) : القَصدُالَّذِيلاغُلُوَّفِيهِوَلاَتَقْصيرَ،وَ(( السَّدادُ )) : الاستقامةوالإصابة . وَ(( يتَغَمَّدني )) : يلبسنيويسترني .
قَالَالعلماءُ : مَعنَىالاستقامَةِلُزُومُطَاعَةِاللهتَعَالَى،قالوا : وهِيَمِنْجَوَامِعِالكَلِم،وَهِيَنِظَامُالأُمُورِ؛وبِاللهِالتَّوفِيقُ .

[ أخرجه : البخاري 7/157 ( 5673 ) ،ومسلم 8/141 ( 2816 ) ( 76) ]

৮৬. হযরত আবু হুরায়রা (রা) বর্ণনা করেনঃ রাসূলে আকরাম সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ তোমরা (দ্বীন সংক্রান্ত বিষয়ে) ভারসাম্য রক্ষা করো এবং এর ওপর দৃঢ়ভাবে দাঁড়িয়ে থাকো। আর জেনে রাখো, তোমাদের কেউ তার আমলের সাহায্যে মুক্তি পাবে না।সাহাবীগণ জিজ্ঞেস করলেন, ‘হে আল্লাহর রাসূল! আপনিও কি!তিনি বললেন, 'আমিও পাবনা; তবে আল্লাহ্ যদি আমায় তাঁর রহমত ও অনুগ্রহের মধ্যে শামিল করে নেন। (অর্থাৎ, আল্লাহর রহমত ও অনুগ্রহ ছাড়া রাসূলে আকরাম সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও নিজ আমল দ্বারা রেহাই পাবেন না।)

[বুখারী: ৭/১৫৭ (৫৬৭৩), মুসলিম: ৮/১৪১ (২৮১৬) (৭৬)]


এ বিভাগের আরো লেখা পড়তে অনুসরণ করুন: নবীর বাণী

.
By Joomla 1.6 Templates and Simple WP Themes